২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২, মঙ্গলবার

বেনজেমার পায়ে এলো হাজারতম গোল; শাখতারের বিপক্ষে জিতলো রিয়াল

- Advertisement -

ইউরোপের মঞ্চে ফুটবলীয় সাফল্যের ইতিহাস ও ঐতিহ্য বিবেচনায় ‘ইউরোপ রাজা’ তাদের সহজেই বলা যায়। রিয়াল মাদ্রিদের সেই রাজমুকুটে বুধবার যুক্ত হলো আরেকটি রত্ন। ইউয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগ (১৯৯২ সালের আগে ‘ইউরোপিয়ান কাপ’ নামে পরিচিত) প্রতিযোগিতার ইতিহাসে প্রথম ক্লাব হিসেবে হাজারতম গোল স্পর্শ করেছে ‘লস ব্লাঙ্কোস’রা। করিম বেনজেমার পা ছুঁয়ে এই মাইলফলক আসার দিনে শাখতার দোনেৎস্ককে ২-১ গোলে হারিয়েছে রিয়াল মাদ্রিদ। শুধু এক হাজারতম নয়, বেনজেমা এদিন করেছেন এক হাজার একতম গোলটিও। দুটি গোলেরই অ্যাসিস্ট করেছেন এই মৌসুমে রিয়ালের আক্রমণভাগে বেনজেমার ‘মানিকজোড়’ বনে যাওয়া ভিনিসিয়ুস জুনিয়র।

মিগুয়েল মুনোজ দিয়েছিলেন সর্বপ্রথম গোলটি; এরপর ২,৩,৪ করে করে ১০০তম গোল যেটি দিয়েছিলেন কিংবদন্তী আলফ্রেডো ডি স্টেফানো। ১০০০ এর ভেতর শতকের বাকি নয়টি মাইলফলকে পুসকাস, গুতি, বেকহাম, ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোসহ বিভিন্ন মহাতারকা ও কিংবদন্তিদের নাম জড়িয়ে আছে। এবার হাজারতম গোলটির এলো ক্লাবের একজন মহাতারকার হাত ধরেই, হ্যাঁ করিম বেনজেমা তো বর্তমান প্রেক্ষাপটে রিয়াল মাদ্রিদের একজন মহাতারকাই বটে, অবসরের পর হয়তো কিংবদন্তিও গণ্য হবেন, তবে সেসব হিসেব নাহয় অন্য কোন দিনের জন্য তোলা থাকুক।

১৪’ মিনিটে বেনজেমা গোল দেওয়ার পর ৩৯ মিনিটে অবশ্য শাখতারের ফার্নান্দো সমতা বিধান করে ফেলেছিলেন। তবে ৬১ মিনিটে আবারো দুর্দান্ত পাসিং ফুটবলের পসরা সাজায় মাদ্রিদ, করিম বেনজেমার ফিনিশিংয়ে যা পায় পূর্ণতা। এই নিয়ে এই মৌসুমে ১৪ ম্যাচে ১৩ গোল ও ৮ অ্যাসিস্ট হয়ে গেছে ফরাসী স্ট্রাইকারের।

তবে গোটা ম্যাচে আলাদা করে যে নজর কেড়েছেন ভিনিসিয়ুস জুনিয়র তা বলাই বাহুল্য। ২টি অ্যাসিস্টের পাশাপাশি ৫টি সফল ড্রিবল, ৫টি চান্স ক্রিয়েট করেছেন, পাক্কা ১০বার প্রতিপক্ষের সাথে ‘ডুয়েলে’ হয়েছেন বিজয়ী। এই নিয়ে এই মৌসুমে ১৫ ম্যাচে গোল-অ্যাসিস্ট মিলিয়ে ১৬টি গোলে ‘অবদান’ রাখলেন এই ব্রাজিলিয়ান তরুণ উইঙ্গার।

এই জয়ে গ্রুপে নিজেদের শীর্ষস্থানও ধরে রেখেছে রিয়াল।

- Advertisement -spot_img
- Advertisement -

সর্বশেষ

- Advertisement -
- Advertisement -spot_img