৭ ডিসেম্বর ২০২২, বুধবার

৫ই ফেব্রুয়ারি ২০১১: প্রিমিয়ার লিগের ঘটন-অঘটনের দিন

- Advertisement -

২০১১ সালের ৫ই ফেব্রুয়ারি, ঠিক দশ বছর আগের আজকের দিনে ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে ঘটেছিল মনে রাখার মতো একাধিক ঘটনা। তার কোনোটা হয়তো আপনি জানেন আবার কোনোটা আপনার অজানা। সব গুলো ঘটনা এক করেছে অলরাউন্ডার।

এখন পর্যন্ত দশ হাজারের ওপর ম্যাচ হয়েছে প্রিমিয়ার লিগে, কিন্তু এমন ঘটনা আগে এক দশক আগের ওই ৫ই ফেব্রুয়ারির আগে কখনোই দেখা যায় নি। আর্সেনাল বনাম নিউক্যাসলের ম্যাচ, ম্যাগপাইদের মাঠ সেইন্ট জেমস পার্কে। ২৬ মিনিটের মধ্যেই আর্সেনাল লিড নেয় ৪ গোলে। প্রতিপক্ষ বিবেচনায় খুব স্বাভাবিক।

তবে ঘটনার আঁড়ালেও থাকে ঘটনা, গল্পের আঁড়ালে গল্প। ম্যাচ শুরুর মিনিট পঞ্চাশের মধ্যেই লাল কার্ড দেখেন আর্সেনালের আবৌ দিয়াবি। মূল নাটকের দৃশ্যায়ন বাকি ছিল তখনও। এরপর ধুমধাড়াক্কা গোল, একটা দুইটা না! গুনে গুনে নিউক্যাসেলের চার গোল শোধ! ড্রয়ে শেষ হয় নাটকীয় ম্যাচ। এমন প্রত্যাবর্তনের স্ক্রিপ্ট আপনি সহজেই লিখতে পারবেন না।

একই ম্যাচ ড’তে ওলভসের মাঠে খেলতে যায় রেড ডেভিলরা। তখনও তারা টানা ২৯ ম্যাচ অপরাজিত। ম্যাচের আগে ওয়ার্ম আপের সময় ইনজুরিতে পড়েন ফার্দিনান্দ। ম্যাচের তিন মিনিটেই ন্যানির গোলে এগিয়ে যায় ম্যান ইউনাইটেড। কিন্তু ঘরের মাঠে জয় পেতে কিংবা ইউনাইটেডের দাম্ভিকতা থামাতে, যেই উদ্দেশ্যেই হোক না কেন, ওলভসের জন্য দুই গোল করাই যথেষ্ট ছিল, তাই-ই হয়েছে পরে। রুনিরা সেই ম্যাচ হারে ২-১ গোলে৷

ম্যানসিটির ফরোয়ার্ড কার্লোস তেভেজ, ২০১১ সালের আজকের দিনে পূর্ণ করেন জীবনের ২৭ বসন্ত। জন্মদিনটি একটি বিশেষ কারণে স্মরণীয় হয়ে থাকবে, কারণ সেদিন ওয়েস্ট ব্রমের বিপক্ষে হ্যাটট্রিক করে বসেন তিনি।  তেভেজ প্রিমিয়ার লিগ ইতিহাসের দ্বিতীয় ফুটবলার হিসেবে হ্যাটট্রিক গোল করেছিলেন, এর আগে একই রেকর্ডে নাম লিখিয়েছিলেন জিমি ফ্লয়েড।

এভার্টনের ফ্রেঞ্চ স্ট্রাইকার লুইস সাহা প্রিমিয়ার লিগে নিজের একমাত্র হ্যাটট্রিকসহ চার গোল করেন ব্ল্যাকপুলের বিপক্ষে। তাঁর দল ম্যাচটি জিতে নেয় ৫-৩ গোলে।

২০১০-১১ মৌসুমে ঘানা জাতীয় দলের ফুটবলার জন পেইন্টসিল ফুলহ্যামের হয়ে খেলেন মোট ১৬ ম্যাচ৷ সেই ফেব্রুয়ারির ৫ তারিখে তিনি করেন প্রিমিয়ার লিগে তাঁর তৃতীয় আত্মঘাতী গোল! ম্যানেজার মার্ক হিউজ আন্দাজ করেন, পেইন্টসিলের লক্ষণ ভালো ঠেকছে না। ৬২ মিনিটে মাঠ থেকে উঠিয়ে নেওয়া হয় তাঁকে। এরপর তাঁকে আর ফুলহ্যামের জার্সিতে মাঠে দেখা যায় নি। গড়ে ২৪ ম্যাচে ১ আত্মঘাতী গোল নিয়ে তিনি ‘সর্বকালের শীর্ষ আত্মঘাতী স্কোরার’দের তালিকায় চতুর্থ স্থানে আছেন।

২০১১ সালের এইদিনে সর্বোচ্চ ৪১ গোলের রেকর্ড গড়ে ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগ, যেই রেকর্ডের সীমানা পার করা এখনও সম্ভব হয় নি।

- Advertisement -spot_img
- Advertisement -

সর্বশেষ

- Advertisement -
- Advertisement -spot_img