NCC Bank
- Advertisement -NCC Bank
১৪ আগস্ট ২০২২, রবিবার

ভারতের বিপক্ষে শ্রীলঙ্কার জয়

- Advertisement -

সিরিজ নির্ধারনী ম্যাচ,  কলম্বোর প্রেমাদাসা স্টেডিয়ামে মুখোমুখি ভারত-শ্রীলঙ্কা। টসে জিতে ব্যাটিংয়ে সফরতরা। ম্যাচের শুরু থেকেই স্বাগতিকদের দাপট; প্রথম দশ ওভারে ভারতের রান ৩৯। ইনিংসে নির্দিষ্ট এই সময়টা তাদের টি-টোয়েন্টি ইতিহাসের সর্বনিন্ম। শেষমেশ নির্ধারিত ২০ ওভারে ভারত ৮ উইকেট হারিয়ে তুলেছে ৮১ রান। জবাবে ৩৩ বল হাতে রেখে ৭ উইকেটের জয় পেয়েছে শ্রীলঙ্কা।

প্রথম ওভারেই ভারতীয় দল হারিয়ে বসে অধিনায়ক ধাওয়ানের উইকেট। ইনিংসের প্রথম বলেই চামিরার বলে ক্যাচ তুলে দেন দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টির ম্যাচসেরা ধনন্জয়া ডি সিলভার হাতে। সেই ম্যাচেই অভিষেক হওয়া গায়কোয়ারের সাথে ইনিংস লম্বা করার চেষ্টা করলেও সুবিধা করতে পারেননি পাড়িকলও। ৭ বলের ব্যাবধানে ফিরে গেছেন ভারতীয় টপঅর্ডারের আরোও মূল তিন ভরসা গায়কোয়ার, পাড়িকল এবং স্যামসন।

পাওয়ার প্লের প্রথম ৬ ওভার শেষে ভারতীয় দলের সংগ্রহ ৪ উইকেট হারিয়ে ২৯ রান। নীতিশ রানাও দ্রুতই ফিরে গেছেন প্যাভিলিয়নে, দলকে বিপদে ফেলেই। নীতিশ যখন আউট হন, তখন ভারতীয় দলের সংগ্রহ ৯ ওভার শেষে ৫ উইকেট হারিয়ে ৩৬ রান।

শুরুর ধাক্কা সামলে এরপর আর ঘুরে দাড়াতে পারেনি ভারতীয় দল। ভুবেনশ্বর এবং কুলদীপ যাদবের হাত ধরে বিপর্যয় কাঁটিয়ে উঠার চেষ্টা করলেও নির্ধারিত বিশ ওভার শেষে ৮ উইকেট হারিয়ে স্কোরবোর্ডে তুলতে পেরেছে ৮১ রান। ভারতীয় দলের হয়ে সর্বোচ্চ ২৩ রান এসেছে কুলদ্বীপ ইয়াদবের ব্যাট থেকে। বল হাতে লঙ্কানদের নায়ক ওয়ানিন্দু হাসারাঙ্গা, ৪ ওভারে ৯ রান খরচায় নিয়েছেন ৪ উইকেট।

ছোট লক্ষ্য তাড়া নেমে স্বাগতিকরা ছিল যথেষ্ঠ সাবধানী। প্রথম উইকেট জুটি ভাঙে দলীয় ২৩ রানে। শেষ পর্যন্ত ৩ উইকেট হারিয়ে জয় পায় শ্রীলঙ্কা। ধনন্জয় ডি সিলভা অপরাজিত ছিলেন ২৩ রানে।

- Advertisement -spot_img
- Advertisement -

সর্বশেষ

- Advertisement -
- Advertisement -spot_img