NCC Bank
- Advertisement -NCC Bank
১৯ আগস্ট ২০২২, শুক্রবার

সহজ ম্যাচ কঠিন করে জিতলেন নাঈমরা

- Advertisement -

মিরপুরে বুধবার দিনের শেষ ম্যাচে শাইনপুকুরের মুখোমুখি হয়েছিল প্রাইম ব্যাংক ক্রিকেট ক্লাব।   শ্বাসরুদ্ধকর ম্যাচে  শেষ হাঁসি হেসেছে তামিম-নাঈমের দল। স্পিনারদের  জ্বলে ওঠার ম্যাচে ব্যাটে-বলে নজর কেড়েছেন প্রাইম ব্যাংক অফস্পিনার নাঈম হাসান। তার অলরাউন্ড নৈপুন্যে  ৩ বল হাতে রেখে  শাইনপুকুরের বিপক্ষে প্রাইম ব্যাংকের জয় ৩ উইকেটে।  নাঈমের কীর্তিতে চাপা পড়ে গেছে শাইনপুকুরের তানভিরের অসাধারণ বোলিং।

ছবিঃ বিসিবি
ছবিঃ বিসিবি

মিরপুর শের-ই-বাংলা স্টেডিয়ামে  টস হেরে ব্যাটিংয়ে নামা শাইনপুকুরের সাবধানী শুরু। ১৯ রানেরে উদ্বোধনী জুটি ভাঙ্গেন অফস্পিনার নাহিদুল ইসলাম। সেই শুরু, পুরো ইনিংসে আর ঘুরে দাড়াতেই পারেনি শাইনপুকুর। নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারিয়ে  তারা গুটিয়ে গেছে মাত্র ১১৯ রানে। অধিনায়ক তৌহিদ হৃদয়ের সর্বোচ্চ ২৯ আর শেষদিকে রবিউলের ১৬ রানে একশর নিচে অলআউটের লজ্জ্বা থেকে বেঁচেছে শাইনপুকুর।

ছবিঃ বিসিবি
ছবিঃ বিসিবি

প্রাইম ব্যাংকের হয়ে মাত্র ২৪ রান খরচায় ৩ উইকেট শিকার নাঈম হাসানের। রান খরচে তার থেকেও কিপ্টে ছিলেন বাঁহাতি স্পিনার মনির হোসেন ও অফস্পিনার নাহিদুল, মনির মাত্র ১৫ রানে নেন ২টি উইকেট । মুস্তাফিজের শিকার ১ উইকেট।

 

১২০ রানের লক্ষ্যে ব্যাটিং করতে নেমে শুরুতেই প্রাইম ব্যাংক হারায় তাদের অধিনায়ক এনামুল হক বিজয়কে। সঙ্গীকে হারালেও অবিচল ছিলেন তামিম ইকবাল। রনি তালুকদারকে নিয়ে গড়েন ৫২ রানের জুটি। রানআউটের ফাঁদে পড়ে ৩২ রান করে তামিম যখন ফেরেন দলের রান তখন ৭.৪ ওভারে ৬১। প্রাইম ব্যাংকের রান যখন ৭৫, উইকেটের ঘর তখন দেখাচ্ছে ৬! মাত্র ১৪ রানে প্রাইম ব্যাংকের ৫ উইকেট তুলে নেওয়ার কৃতিত্ব বাঁহাতি স্পিনার তানভির ইসলামের। জয়ের রাস্তা সুগম করা তামিমের মনে তখন নিশ্চই জেগেছিল হারের শঙ্কা।

ছবিঃ ইন্টারনেট
ছবিঃ ইন্টারনেট

আটোঁসাটো বোলিং করেছেন তানভির, সঙ্গে পাল্লা দিয়ে নিয়েছেন উইকেট। ৪ ওভারে রান দিয়েছেন মাত্র ১২, উইকেট ৩টি। উইকেট কিংবা রান খরচে কিপ্টেমি, সবকিছু ছাঁপিয়ে আক্রমনাত্মক বোলিং করে শাইনপুকুরের খেলোয়াড়দের মনে জয়ের বীজ বুনে দিয়েছেন। তাসের ঘরের মতো ভেঙ্গে পড়া ব্যাটিং লাইন আপকে জোড়াতালি দেওয়ার চেষ্টা করেছিলেন অভিজ্ঞ রকিবুল হাসান, সঙ্গে ছিলেন তরুণ স্পিনার নাঈম হাসান।

প্রথমে বল হাতে দলকে এনেছেন ড্রাইভিং সিটে, এরপর ব্যাট হাতে দলকে টেনেছেন। ব্যাট-বল উভয় ডিপার্টমেন্টেই আলো ছড়িয়েছেন নাঈম, নয় নম্বরে নেমে ১৬ বলে খেলেছেন ১৮ রানের ছোট্ট কিন্ত কার্যকরী ইনিংস। রকিবুল হাসান অপরাজিত ছিলেন ১৮ রানে।  ৩ বল হাতে রেখে প্রাইম ব্যাংকের জয়ের নায়ক তাই নাঈম হাসান ।

 

- Advertisement -spot_img
- Advertisement -

সর্বশেষ

- Advertisement -
- Advertisement -spot_img